Sunday , July 21 2019
Breaking News

৫। (ক) সাক্ষ্য বলতে কি বুঝায়? আদালতে কোন কোন বিষয়ে সাক্ষ্য দেয়া যায়? একজন বোবা লোক অল্পবয়স্ক বালক বা অতিবৃদ্ধ লোক কি সাক্ষ্য দিতে পারে। (খ) পুলিশ হেফাজতে প্রদত্ত স্বীকারোক্তি কখন প্রাসঙ্গিক

৫ -ক নং প্রশ্নের  উ্ত্তর সাক্ষ্য  (Evidence) : ১৮৭২ সালে প্রণীত সাক্ষ্য আইনের ৩ ধারা অনুসারে কোনো মামলার বিচার্য বা প্রাসঙ্গিক বিষয় প্রমাণ বা অপ্রমাণ করার জন্য যে সকল বিবৃতি-বস্তু -দলিল আদালতে উপস্থাপনা করা হয় তাকে সাক্ষ্য বলে। (সাক্ষ্য আইনের ৩ ধারা) আদালতে যে সকল বিষয়ে সাক্ষ্য দেওয়া যায় তা নিম্নরূপ: …

Read More »

০৪। তদন্তের উদ্দেশ্যে কি? কে কে তদন্ত করতে পারে? একটি মামলার রুজু থেকে নিষ্পত্তিপূবক স্তরসমূহ বনর্না করুন।

৪ নং প্রশ্নের উত্তর তদন্ত (Investigaion): ১৮৯৮ সালে প্রণীত ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ৪(ঠ) উপধারা অনুযায়ী কোনো ঘটনার সত্যতা নির্ণয়ের জন্য সাক্ষ্য প্রমাণ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে পুলিশ অফিসার বা ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট হতে ক্ষমতাপ্রাপ্ত পুলিশ অফিসার অথবা অন্য কোনো ব্যক্তি কর্তৃক পরিচালিত কার্যক্রমকে তদন্ত বলে।[ফৌ:কা: ১৫৬, ১৫৭ ধারা ও পিআরবি ২৫৮/৬১৬ বিধি] তদন্তের …

Read More »

০৩। আত্মরক্ষার অধিকার কি? এ অধিকার বলে কোনো চোরের মৃত্যু ঘটানো যাবে কি এ অধিকার রক্ষায় কোন ক্ষেত্রে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটানো যায় তা দন্ডবিধির আলোকে আলোচনা করুন।

৩ নং প্রশ্নের ‍উত্তর আত্মরক্ষার ব্যক্তিগত অধিকার (Right of Private Defense):  ১৮৬০ সালে প্রনীত পেনাল কোডের ৯৯ ধারার শর্ত সাপেক্ষে কোনো ব্যক্তি তার নিজের জানমাল ও অপরের জানমাল এবং সরকারি সম্পত্তির যে কোনো প্রকার ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করার জন্য ক্ষতি সাধরকারীর বিরুদ্ধে যে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেন তাকে আত্মরক্ষার ব্যক্তিগত অধিকার …

Read More »

১। অপমৃত্যু মামলায় তদন্ত পদ্ধতি আলোচনা করুন। ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যার ক্ষেত্রে ঘটনাস্থল হতে কি কি আলামত জব্দ করা প্রয়োজন বণর্না করুন।

১ নং প্রশ্নের উত্তর অপমৃত্যুঃ কোন ব্যক্তির স্বাভাবিক মৃত্যুর বাইরে মৃত্যু হলে অর্থাৎ কেউ তাকে হত্যা করলে বা নিজে নিজে আত্মহত্যা করলে বা জীবজন্তুর আঘাতে মারা গেলে বা দুর্ঘটনায় মারা গেলে সেই মৃত্যুকে অপমৃত্যু বলে। কাঃবিঃ ১৭৪ ধারা, পিআরবি ২৯৯, ৩০০ বিধি। অপমৃত্যু মামলার সংবাদ প্রাপ্তির পর তদন্ত পদ্ধতি নিম্নে আইন …

Read More »

০২। ধতর্ব্য ও অধতর্ব্য অপরাধ বলতে কি বুঝায়? ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৮৯৮ অনুযায়ী অধতর্ব্য অপরাধ তদন্তের পদ্ধতি আলোচনা করুন?

২ নং প্রশ্নের উত্তর ধর্তব্য অপরাধ: যে সকল অপরাধ করলে সেই অপরাধীকে পুলিশ অফিসার আদালতের অনুমতি ব্যতীত বা বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার করতে পারেন সেই অপরাধ গুলোকে আমলযোগ্য/ধর্তব্য অপরাধ বলে [ফৌ: কা: ৪(চ) ধারা] অধর্তব্য অপরাধ: যে সকল অপরাধ করলে সেই অপরাধীকে পুলিশ আদালতের অনুমতি ব্যতীত বা বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার করতে …

Read More »

১। এজাহার কি ? উহার উপাদানসমূহ বর্ণনা করুন। এজাহারের স্বতন্ত্র সাক্ষ্যগত মূল্য সম্পর্কে আলোচনা করুন।

১ নং প্রশ্নের উত্তর উত্তর: এজাহার (FIR):  ১৮৯৮ সালে প্রণীত ফৌ: কা: আইনের ১৫৪ ধারা অনুযায় কোনো ধর্তব্য অপরাধের অভিযোগ (মৌখিক বা লিখিত আকার) সর্ব প্রথম থানায় আসার পর থানার অফিসার ইনচার্জ উক্ত অভিযোগের সারমর্ম বিপি ফরম নং-২৭ ও বাংলাদেশ ফরম নং-৫৩৫৬ এর নির্দেশানুসারে লিপিবদ্ধ করেন এবং অভিযোগে সংবাদ দাতার …

Read More »

৫। স্বীকারোক্তি বলতে কি বুঝায়? যে সকল ক্ষেত্রে স্বীকারোক্তি প্রাসঙ্গিক বা গ্রহণযোগ্য নয়-তা সাক্ষ্য আইনের ধারাসহ আলোচনা করুন।

৫ নং প্রশ্নের উত্তর উত্তর: স্বীকারোক্তি (Confession): ১৮৭২ সালে প্রণীত সাক্ষ্য আইনের ২৪ ধারা মোতাবেক যখন কোনো অভিযুক্ত ব্যক্তি ক্ষমতাবান ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট কোনো প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন, প্রলোভন ও প্রতিশ্রুতি ব্যতীত স্বেচ্ছায় নিজের দোষ স্বীকার করে তখন তাকে স্বীকারোক্তি বলা হয়। স্বীকারোক্তি সম্পর্কে  সাক্ষ্য আইনের ২৪ থেকে ৩০ ধারায় আলোচনা করা …

Read More »

২। তল্লাশি কাকে বলে? দেহ তল্লাশি করার সময় পুলিশের করণীয় ও বর্জনীয় দিক সম্পর্কে আলোচনা করুন।

২। তল্লাশি কাকে বলে? দেহ তল্লাশি করার সময় পুলিশের করণীয় ও বর্জনীয় দিক সম্পর্কে আলোচনা করুন। ২ নং প্রশ্নের উত্তর তল্লাশীঃ কাঃবিঃ আইনের ৯৪, ৯৫, ৯৮, ৯৯-ক, ১০০, ১৬৫ এবং ১৬৬ ধারা মোতাবেক মামলার আলামত, অবৈধ ডাক, চোরাইমাল, অবৈধ প্রকাশনা এবং বেআইনীভাবে আটক ব্যক্তিকে উদ্ধারের জন্য পরোয়নাসহ বা পরোয়াণা ছাড়া …

Read More »

১। গ্রেফতার কাকে বলে ? ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের কোন কোন ধারা অনুযায়ী পুলিশ কোনো ব্যক্তিকে বিনা পরোয়ানায় গ্রেফতার করতে পারেন? সংশ্লিষ্ট আইনের ধারা ও বিধি উল্লেখপূর্বক আলোচনা করুন।

১ নং প্রশ্নের উত্তর গ্রেফতারঃ কোন অপরাধী বা অভিযুক্ত ব্যক্তির ব্যক্তি স্বাধীনতা খর্ব করে আইনানুগ প্রক্রিয়ায় অভিযুক্তকে সরকারী হেফাজতে বা পুলিশ হেফাজতে বা আদালতের হেফাজতে নেওয়াকে গ্রেফতার বলে।[কাঃ বিঃ ৪৬ ধারা, পিআরবি ৩১৬ বিধি।] একজন অপরাধীকে পুলিশ অফিসার বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে গ্রেফতার করতে পারেন। ফৌজদারি কার্যবিধি আইনের যেসকল ধারা অনুযায়ী পুলিশ …

Read More »

৬। স্বীকৃত ও স্বীকারোক্তির মধ্যে পার্থ্ক্য কি ? পুলিশ হেফাজতে প্রদত্ত স্বীকারোক্তি কখন প্রাসঙ্গিক তা বিশদভাবে আলোচনা করুন।

৬ নং প্রশ্নের উত্তর স্বীকৃত ও স্বীকারোক্তির মধ্যে পার্থক্যসমূহ নিম্নে আলোকপাত করা হলোঃ স্বীকৃতি স্বীকারোক্তি স্বীকৃতি: কোন ব্যক্তি আদালতে হাজির হয়ে কোন বিচার্য বা প্রাসঙ্গিক বিষয়ে মৌখিক বা লিখিতভাবে যে বিকৃতি প্রদান করে যা বিচারকের বিচাযকার্যে সহায়তা করে তাকে স্বীকৃতি বলে। স্বীকারোক্তি: কোন আসামী আদালতে হাজির হয়ে ভয়ভীতি প্রলোভন ইত্যাদি …

Read More »